Advertisements
Skip to content

করোনা কালে থেমে নেই ,হিংস্রতা অপরাধ চলছে

1588575254-picsay

বাউফলে এক ইউপি সদস্যর নেতৃত্বে তিন নারীকে প্রকাশ্যে বিবস্ত্র করে নির্যাতন করা হয়েছে। এক নারীর পা ভেঙ্গ দেয়া হয়েছে। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই তিন নারীকে বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বগা রাজনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও অন্যান্য সূত্রে জানা গেছে, জমিজমা নিয়ে সত্তার হাওলাদারের সাথে ওই গ্রামের ইউপি সদস্য মিজানুর রহমানের বিরোধ চলে আসছে। ঘটনার দিন রবিবার দুপুরে ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান ১৫-২০ জন লোক নিয়ে বিরোধপূর্ণ ওই জমিতে মুগ ডাল তুলতে গেলে সত্তার হাওলাদারের স্ত্রী রাশিদা বেগম (৫০),ভাসুরের মেয়ে কুৃলসুম বেগম (৩২) ও ছেলের বউ লাকি বেগম (২৫) বাধা দেয়। তর্কবির্তকের এক পর্যায়ে ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান ও তার লোকজন ওই তিন নারীকে প্রকাশ্যে এলাপাতাড়ি ভাবে পিটেয় জখম করে।

নির্যাতিত রাশিদা বেগম, কুলসুম বেগম ও লাকি বেগম জানান, ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান ও তার লোকজন তাদেরকে পিটিয়েই ক্ষান্ত হননি। পরনের কাপর ও সোলোয়ার কামিজ টেনে ছিড়ে ফেলে। তাদেরকে বিবস্ত্র করে, আপত্তিকর স্থানে হাত দেয়। এর পর চুল ধরে মাটিতে ফেলে এক সাথে ৩-৪ জন মিলে লাথি মারে । এ ঘটনায় লাকি বেগমের ডান পা ভেঙ্গে যায়। পরে আত্বিয় স্বজন এসে তাদের উদ্ধার করে বাউফল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ভর্তি করেন।

এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য মিজানুর রহমানকে তার ০১৭২৭৬৭৮৫০১ নম্বরের মোবাইল ফোনে কল দিলে কেটে দেন। পরে ওই নম্বরে খুদে বার্তা (এসএমএস) পাঠিয়ে তার বক্তব্য দেয়ার জন্য অনুরোধ করা হলেও তিনি সাঁড়া দেননি।

 

Advertisements
%d bloggers like this: