Advertisements
Skip to content

মহামারি করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রে এরইমধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ছাড়িয়ে গেছে

3e94e870a59ec6c1e8bf505f6e702998

 

 

মহামারি করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রে এরইমধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ছাড়িয়ে গেছে বলে আশংকা করছেন দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। যুক্তরাষ্ট্রে সরকারি হিসেবে এ পর্যন্ত প্রায় ২৫ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। কিন্তু দেশটির রোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রের (সিডিসি) কর্মকর্তারা বলছেন, আক্রান্তের সংখ্যা আরও দশগুণ বেশি হবে। এমন অনেকেই আছেন যারা আক্রান্ত হয়েছেন কিন্তু পরীক্ষার অভাবে জানেন না কিংবা উপসর্গ না থাকায় বুঝতে পারছেন না। খবর বিবিসি ও আল জাজিরার।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুসারে, যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি হিসেবে, দেশটিতে ২৫ লাখ ৪ হাজার ৫৮৮ জন আক্রান্ত এবং ১ লাখ ২৬ হাজার ৭৮০ জন মারা গেছেন। এরইমধ্যে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন লকডাউন শিথিল করায় গত কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন রাজ্যে বাড়তে শুরু করেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে। আর এমন পরিস্থিতিতে টেক্সাস রাজ্য কর্তৃপক্ষ সবকিছু চালু করা স্থগিত করেছে।

সিডিসির কর্মকর্তারা মনে করছেন, দেশব্যাপী আতঙ্ক যাতে না ছড়ায়, সেজন্য ট্রাম্প প্রশাসন প্রকৃত তথ্য জানাচ্ছে না। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটির উপরে। ২ কোটি আক্রান্ত হওয়ার মানে দাঁড়াচ্ছে দেশটির ৬ শতাংশ মানুষ ইতিমধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে (মোট জনসংখ্যা ৩৩ কোটি ১ লাখ)।

সম্প্রতি সিডিসি দেশব্যাপী ব্লাড স্যাম্পল সংগ্রহ করতে শুরু করেছে। সেটার ভিত্তিতে দেখা যাচ্ছে মহামারির শুরুতে অনেকে বুঝতেই পারেননি যে তারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

সিডিসির পরিচালক ড. রবার্ট রেডক্লিফ বলেন, এই মুহূর্তে আমাদের মনে হচ্ছে, আমরা যেখানে একজন আক্রান্ত শনাক্ত করেছি, সেখানে প্রকৃতপক্ষে আক্রান্ত হয়েছে অন্তত ১০ জন। তিনি বলেন, যাদের উপসর্গ ছিল, তাদেরই পরীক্ষা করা হয়েছে। শুরুর দিকে অনেকে টেস্ট করারই সুযোগ পাননি। যাদের মধ্যে করোনার লক্ষণ ছিল না, তাদের টেস্ট করানো হয়নি। এ পরিস্থিতিতে তিনি সবাইকে মুখে মাস্ক পরার এবং শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার আহ্বান জানান।

এর আগে মঙ্গলবার ট্রাম্পের করোনা উপদেষ্টা ও সংক্রামক রোগ বিষয়ক ন্যাশনাল ইনস্টিটিউটের প্রধান ডা. অ্যান্থনি ফাউচি জানিয়েছিলেন, দেশটির মোট আক্রান্তের ২৫ শতাংশ জানেনই না যে তারা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কারণ, তাদের মধ্যে কোনো লক্ষণ প্রকাশ পায়নি।

শুধু তাই নয়, ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা পূর্বাভাস দিয়েছেন, আগামী অক্টোবর নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় প্রাণহানি ১ লাখ ৮০ হাজার ছাড়িয়ে যাবে। আর যদি দেশের ৯৫ শতাংশ মানুষ মাস্ক ব্যবহার করে, তবে মৃত্যু কিছুটা কম হবে। সেক্ষেত্রে প্রাণহানি ১ লাখ ৪৬ হাজারে পৌঁছতে পারে।

এদিকে ট্রাম্প প্রশাসন প্রচারণা চালাচ্ছে যে করোনাভাইরাস যুক্তরাষ্ট্রে দুর্বল হয়ে পড়েছে। আস্তে আস্তে বিদায় নিচ্ছে। কিন্তু প্রকৃত চিত্র ঠিক তার বিপরীত। গত বুধবারও ৩৬ হাজার মানুষ একদিনে আক্রান্ত হয়েছে।

Advertisements
%d bloggers like this: