Advertisements
Skip to content

চীনের নতুন ভাইরাস এ মহামারীর আশঙ্কা

VQQC7PMWIV72TVIXYDGOUGHGPI

 

নতুন এক ধরণের ফ্লু ভাইরাস চিহ্নিত করেছেন চীনের বিজ্ঞানীরা, যা মহামারি হয়ে ওঠার আশঙ্কা রয়েছে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, সম্প্রতি এই ভাইরাসের উৎপত্তি হয়েছে, যা শূকর বহন করে। কিন্তু এই ভাইরাস মানুষকেও আক্রান্ত করতে পারে।

গবেষকদের আশঙ্কা, নতুন এই ফ্লু ভাইরাস মানুষ থেকে মানুষে সহজে ছড়িয়ে পড়তে আরও অভিযোজিত হয়ে উঠতে পারে। সেইসঙ্গে বিশ্বজুড়ে নতুন মহামারিতে পরিণত হতে পারে।

বিশ্ব যখন করোনা ভাইরাসে বিপর্যস্ত ঠিক এই মুহূর্তে চীনের বিজ্ঞানীরা নতুন আরও এই ভাইরাস নিয়ে সতর্কতা জারি করলেন। গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকেই করোনার উৎপত্তি ঘটে।

নতুন এই ফ্লু ভাইরাস নিয়ে বিজ্ঞানীরা আরও জানান, মানুষকে সংক্রমিত করার জন্য এতে সব ধরনের লক্ষণ আছে। এছাড়া ভাইরাসটি নতুন হওয়ায় মানুষের সুস্থ হওয়ায় সম্ভাবনা খুব কম।

তবে বিজ্ঞানীরা ধারণা করছেন, এই নতুন ভাইরাস নিয়ে এখনে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই। তবে তাদের ভাষ্য, এটি নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০০৯ সালের সোয়াইন ফ্লুর সঙ্গে মিল রয়েছে নতুন এই ভাইরাসের। তবে নতুন কিছু পরিবর্তন হয়েছে।

এই ভাইরাস নিয়ে গবেষণা করা প্রফেসর কিন-চো চ্যাং এবং তার সহকর্মীরা বলছেন, এর ওপর নজর রাখা দরকার।

গবেষকেরা নতুন এই ফ্লু ভাইরাসটিকে জি৪ইএএইচ১এন১ নামে অভিহিত করছেন। এই ভাইরাস মানুষের শ্বাসযন্ত্রের মধ্যে বেড়ে উঠতে এবং বিস্তার ঘটাতে পারে।

গবেষকেরা জানান, সম্প্রতি এই ভাইরাস মানুষকে আক্রান্ত করা শুরু করেছে যারা চীনের শূকর এবং কসাইখানা কারখানায় কাজ করছেন।

বর্তমানে ফ্লুর যে ভ্যাকসিন/টিকা রয়েছে তা নতুন এই ভাইরাসটির সংক্রমণ রোধ করতে পারছে না।

যুক্তরাজ্যের নটিংহ্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক কিন চো-চ্যাং বিবিসিকে বলেন, এই মুহুর্তে আমরা করোনা নিয়ে হতভম্ব। তবে আমাদের অবশ্যই নতুন ভাইরাসগুলোর প্রতি ওপর থেকে চোখ সরানো চলবে না।

 

বিবিসি।

 

 

Advertisements
%d bloggers like this: