Skip to content

করোনাভাইরাসে বেকার ভাতার অতিরিক্ত ৬০০ ডলারের পরিবর্তে ৪০০ ডলারের নির্বাহী আদেশ জারি

 

হাউজ স্পিকার ন্যান্সি পলোসি ও সিনেট ডেমোক্রেটিক লিডার চাক শুমারের সাথে দফায় দফায় আলোচনা করে শেষে দুই পক্ষই কোনো সমঝোতায় না আসতে পারায় সব আলোচনা ভেস্তে যায়।

অবশেষে শনিবার প্রেস কনফারেন্সে প্রেসিডেন্ট ডোলান্ড ট্রাম্প করোনাভাইরাসে বেকার ভাতার অতিরিক্ত ৬০০ ডলারের পরিবর্তে ৪০০ ডলারের নির্বাহী আদেশ জারি করেন।

এদিকে বিল পাশের ব্যর্থ হওয়ায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সম্পূর্ণ দোষ চাপিয়ে দেন কংগ্রেসনাল ডেমোক্রেটিক নেতৃত্বের ওপর।যদিও ন্যান্সি পলোসি ও চাক শুমার হাউজ পাশ হওয়া ৩.৪ ট্রিলিয়ন ডলারের মূল প্রণোদনা প্যাকেজ থেকে আপোষের স্বার্থে ১ ট্রিলিয়ন ডলার কমাতে রাজি হন। কিন্তু রিপাবলিকনরা মোট ১ ট্রিলিয়ন ডলারের বেশি দিতে রাজি না।

করোনার সংক্রমণে বিপর্যস্ত আমেরিকার অর্থনীতি। গত মার্চ মাসে লকডাউনে যাওয়ার পরই ইতিহাসের সবচেয়ে বড় নাগরিক সহযোগিতার আইন পাস করা হয়। নাগরিকদের নগদ এককালীন অর্থ দেওয়া ছাড়াও কর্মহীনদের নিয়মিত বেকার ভাতার সঙ্গে সপ্তাহে ৬০০ ডলার করে দেওয়া হয়।

বর্ধিত এ ভাতার মেয়াদ ৩১ জুলাই শেষ হয়েছে। আমেরিকার অর্থনীতি এখনো পুরোদমে চালু হয়নি। লোকজন এখনো কর্মহীন। লোকজন বাসা ভাড়া, বাড়ির মর্টগেজ দেওয়াসহ নিত্যদিনের ব্যয় সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছেন। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা ব্যবসা ধরে রাখতে পারছেন না।তবে ট্রাম্পের এই নির্বাহী আদেশের কারনে বাংলাদেশিদের মধ্যে কিছুটা হলেও স্বস্তি অনুভব পরিলক্ষিত দেখা যায।

%d bloggers like this: