Skip to content

নিউইয়র্কে চিকিৎসায় অবহেলায় বাংলাদেশি আইটি ইঞ্জিনিয়ার রবিউলের মৃত্যু

 নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে যথাসময়ে ভর্তি হবার পরও সুচিকিৎসার অভাবে ২৮ বছর বয়সী বাংলাদেশি-আমেরিকান আইটি ইঞ্জিনিয়ার শেখ রবিউল আলম মারা গেছেন বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে।নিউইয়র্ক সিটির কুইন্স ভিলেজের ৮০২১ সাইপ্রেস এভিনিউর বাসিন্দা প্রকৌশলী রবিউল টানা ১২দিন হাসপাতালে আইসিইউতে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে ২ আগস্ট রবিবার শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন বলে চিকিৎসকরা জানান।

জানা গেছে, গোপালগঞ্জের সন্তান রবিউল ম্যানহাটানে একটি কোম্পানীতে চাকরি করতেন। কর্মস্থলের একটি প্রকল্পের কাজ নিয়ে দিন-রাত ব্যস্ত সময় অতিবাহিত করছিলেন এই তরুণ প্রকৌশলী। এমনি অবস্থায় ২১ জুলাই গভীর রাতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে এ্যাম্বুলেন্স যোগে নিকটস্থ ওয়াইকফ হেইট মেডিকেল সেন্টারে নেয়া হয়। এর দুদিন পর তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়। ৩০ জুলাই তার মস্তিষ্ক অচল (ব্রেনডেড) হয়েছে বলে ঘোষণা দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ৩১ জুলাই তাকে মৃত ঘোষণার প্রস্তুতি নেয়া হলে পরিবারের পক্ষ থেকে আপত্তি জানিয়ে অন্য হাসপাতালে স্থানান্তরের আবেদন জানানো হয়। রবিউলের চিকিৎসায় সীমাহীন উদাসীনতার অভিযোগ করেন তার একমাত্র ছোট ভাই শেখ আল আমিন। আল আমিন কাজ করেন ম্যানহাটানের বিখ্যাত একটি ল’ফার্মে। ভাইয়ের প্রতি হাসপাতালের অবহেলা-অবজ্ঞায় ক্ষুব্ধ আল আমিন ২ আগস্ট রাতে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, ‘হাসপাতালের এমন আচরণ মেনে নেয়া যায় না। সর্বোচ্চ আইনগত লড়াই চালাবো, যাতে ভবিষ্যতে এমন নিষ্ঠুর আচরণে সাহস না পায়।’

এহেন অবস্থায় ‘সাউথ এশিয়ান ফান্ড ফর এডুকেশন, স্কলারশি এ্যান্ড ট্রেনিং’ (স্যাফেস্ট) এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাজেদা এ উদ্দিন যোগাযোগ করেন স্থানীয় সিটি কাউন্সিলম্যান এবং স্টেট এ্যাসেম্বলীম্যানের সাথে। নিউইয়র্ক সিটি কম্পট্রোলার স্ট্রিঙ্গারও ক্ষুব্ধ এবং তিনি চিকিৎসকদের অবহেলার কঠোর সমালোচনা করেছেন। অপরদিকে, অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে হাসপাতালের একজন কর্মকর্তা নাম গোপন রাখার শর্তে বলেছেন, রোগীর চিকিৎসায় কখনো কেউ অবহেলা করতে পারে না।

‘অন্তত: সোমবার পর্যন্ত রবিউলকে মৃত ঘোষণা না করার অনুরোধ জানানো হয়’ বলে মাজেদা বাংলাদেশ প্রতিদিনের এ সংবাদদাতাকে জানান। সে অনুরোধে সাড়া না দিয়ে ২ আগস্ট রবিবার সকালে রবিউলকে মৃত ঘোষণা করেছেন চিকিৎসকরা। এ ঘটনায় প্রবাসীদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পরিলক্ষিত হচ্ছে। হাসপাতালের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন রবিউলের স্বজনেরা-এ তথ্য জানা গেছে। শেখ রবিউলকে জন্মভূমি গোপালগঞ্জে দাফন করা হবে বলে জানালেন শেখ আল আমিন।

%d bloggers like this: