Skip to content

মাঝিবিহীন চলছে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামীলীগ ও আগামীদিনের সম্ভাব্য নেতৃতে যারা আসবে নতুন কমিটিতে !

 

আমেরিকায় আওয়ামী লীগে চলছে সুনসান নীরবতা।যেখানে এই সময়টাতে সব সময়  ব্যাস্ত থাকে নিউইয়র্ক  রাজনীতি পাড়া নামে খ্যাত জ্যাক্সন হাইটস । গতবার  সম্মেলন হয়নি, নতুন কমিটি হয়নি। কবে হবে ? আদ্য হবে কিনা এই নিয়ে চলছে নানান জল্পনা কল্পনা কেউ চায় নতুন কমিটি আবার একটা গ্রুপ আছে যারা চাইছে না , নতুন কমিটি !  যেমন আছে তেমন জোড়া তালি মেরে চলতে কিন্তু ত্যাগী  নেতা কর্মীরা চায় নতুন কমিটি কিন্তু কবে হবে ? সেই কাংখিত কমিটি তা নিয়েও কারও কোনো ধারণা নেই। শেষ পর্যন্ত অবস্থা কোনদিকে মোড় নেবে, কারা প্রবাসে  দলের পরিচয় বহন করতে পারবেন, এ নিয়ে চলছে নানা কথাবার্তা।কেউ কেউ ফেসবুক এ নানান ভাবে পোস্ট দিয়ে চলেছে নেতা নেত্রীর নামে ।

গত বছর  জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৪তম অধিবেশনে যোগ দিতে ২২ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে আসেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁর নিউইয়র্ক আগমন উপলক্ষে প্রতি বছরই সংবর্ধনার আয়োজন করে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ। ম্যানহাটনের নামীদামি হোটেলে আয়োজন ছিল জমজমাট। এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ দুই মাস আগে থেকে প্রস্তুতি গ্রহণ করে এবং এ নিয়ে  নিয়ে মারামারি হয়েছে দুই গ্রুপ । সহিংসতার জন্য মামলা ও গ্রেপ্তারের ঘটনা ঘটেছিল । বিরোধীদের তেমন কোনো করা অবস্থান না থাকলেও নিজেদের কোন্দলে আওয়ামী লীগেরই বদনামে হয়েছে। শেষ পর্যন্ত নেত্রী গোলমাল এর আগাম সংবাদ পেয়ে কমিটি না দিয়েই দেশে ফিরে যান ।এই বছর করোনা মহামারীর কারনে সব কিছু ওলটপালট কিন্তু বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এই বছর শীত শেষে সারা বাংলাদেশ সহ প্রবাসে সকল আওয়ামীলীগ  পরিবার কে নতুন করে সাজানোর পরিকল্পনা করছে । সেই তালিকায় যারা থাকবে আলোচনায় আবার  তাদের অনেক এ ইতি মধ্যে নানান কর্মকান্ডের কারনে আলোচনায় তাই অনেক এ  পদ পদবি থেকে বাদ পড়বেন আবার ঊঠে আসবেন নতুন কিছু আলোচিত মুখ আবার তাদের সবার অতীত এর  সকল  রেকড ও বিশেষ  গোয়েন্দা রিপোর্ট  এর পর নতুন কমিটির খসড়া চলে যাবে আওয়ামীলীগ এর কেন্দ্রীয় কমিটির হাতে সেখান থেকেই সিদ্ধান্ত হবে কারা থাকবে কারা থাকবে না ।

 

 

 

 

সভাপতি পদে আমেরিকায় আওয়ামী লীগে যারা থাকবেন আলোচনায় ঃ

ডাঃ  জিয়াউদ্দিন আহ্নমেদ , ডাঃ মনসুর আহ্নমেদ , ডাঃ প্রদীপ কর ,আক্তার হোসেইন ,জয়নুল আবেদিন

 

 

সাধারন সম্পাদক পদে আমেরিকায় আওয়ামী লীগে যারা থাকবেন আলোচনায় ঃ

এমদাদ চোধুরী , গোলাম রব্বানী,  চন্দন দত্ত , হিন্দাল কাদের বাপ্পা ,আব্দুল হাসিব মামুন ,শাহীন  আজমল ,কাজী কায়েস ,মাহিউদ্দিন দেওয়ান  মোঃ আলি সিদ্দকী  , মোহান্মদ  মুহিত,হাজি  এনাম , দেওয়ান বজলু ,আব্দুর রহিম বাদশা ।

 

ষ্টেট আওয়ামীলীগ 

রফিকুল ইসলাম ও  স্বীকৃতি বড়ুয়া

 সিটি   আওয়ামীলীগ 

মাহিউদ্দিন মাহি  ও নুরুল আমিন বাবু

 

যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্বে ড. সিদ্দিকুর রহমান রয়েছেন নয়  বছর ধরে ।এদিকে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রধান দুটি পদের জন্য বিভিন্ন ব্যক্তি ও নতুন মুখের  নাম প্রকাশ পাচ্ছে, তা নিয়ে কর্ণপাত না করার জন্য নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সচেতন নেতারা। তারা বলেন, দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের যে কমিটি উপহার দেবেন তা সবাই মেনে নেবেন।এতে কারও কোনো আপত্তি নেই। কিন্তু দলের ভিতরে অনেক গুলো গ্রুপ রাজনীতির সৃষ্টির কারনে এখানে এখন সুস্থ রাজনীতি নেই আর সেই কারনে ই অনেক এ রাজনীতি থেকে দূরে আছেন ।  দলীয় পটভূমিহীন, সাংগঠনিক অদক্ষতা ও দুর্নীতিপরায়ণ ব্যক্তিদের কবল থেকে দলকে রক্ষা করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদৃষ্টি কামনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীরা। উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান ও ভারপ্রাপ্ত সা.সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদের নানা দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ৯  বছর আগে মেয়াদোত্তীর্ণ যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের  কমিটি ভেঙে দেয়া হলেও বর্তমান সময়ে জোড়া তালি দিয়ে  খুড়িয়ে খুড়িয়ে আমেরিকায় আওয়ামী লীগ পরিবার  চলছে ।বর্তমানে ডাঃ সিদ্দিকুর রহমান এর ডাকে  নেতা কর্মীরা তেমন সাড়া দিচ্ছেন না আর সেই কারনেই আওয়ামীলীগ পরিবারের অঙ্গ সংগঠন গুলো যে যার মত করে আলাদা আলাদা কর্মসুচী দিয়ে চলছে সামনে আসছে ১৫ই আগষ্ট চলছে নানান রকম প্রস্তুতি ।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

%d bloggers like this: